ঢাকা ১০:২৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ ::
আমাদের নিউজপোর্টালে আপনাকে স্বাগতম...

তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি ছাড়াল, হিট স্ট্রোকের ঝুঁকি এড়াতে বিশেষ সতর্কতা

মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ সঙ্গে ভ্যাঁপসা গরম গ্রীষ্মের শুরুতেই জানান দিচ্ছে প্রকৃতির রুক্ষতা। আবহাওয়া বিভাগ বলছে এ অবস্থা চলবে সপ্তাহজুড়ে। তাপমাত্রার পারদ চড়ছে হুহু করে।

 আজ মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে চুয়াডাঙ্গায়।

স্থানীয় আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগার সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার বিকেলে ৩টায় ৪০ দশমিক ৬ ডিগ্রি তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়। এ সময় বাতাসের আর্দ্রতা ছিল ২৭ শতাংশ, যা চলতি মৌসুমে চুয়াডাঙ্গার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা।

এর আগে গতকাল (১৫ এপ্রিল) বাংলা নতুন বছরের দ্বিতীয় দিনে রাজশাহীতে বছরের সর্বোচ্চ তাপ মাত্রা ৪১ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস — যা একাধারে গত আট বছরের মধ্যে দিনের বেলায় রেকর্ড করা সর্বোচ্চ তাপমাত্রা।

এদিকে তাপ প্রবাহের কারণে হিট স্ট্রোকের ঝুঁকি রয়েছে বারবার সতর্ক করছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞগণ।

এবিষয়ে চুয়াডাঙ্গা জেলার সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আওলিয়ার রহমান বলেন, তাপপ্রবাহের কারণে হিট স্ট্রোকের ঝুঁকি থাকে। তাই অতি প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের না হতে পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

চুয়াডাঙ্গা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপপরিচালক বিভাস চন্দ্র সাহা বলেন, তাপপ্রবাহের ক্ষতি থেকে ধান রক্ষার জন্য ধানের শীষে দানা শক্ত না হওয়া পর্যন্ত জমিতে অবশ্যই ৫-৭ সেন্টিমিটার পানি ধরে রাখুন।

ট্যাগস :

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

জনপ্রিয় সংবাদ

তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি ছাড়াল, হিট স্ট্রোকের ঝুঁকি এড়াতে বিশেষ সতর্কতা

আপডেট সময় : ০৮:০৪:২০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪

মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ সঙ্গে ভ্যাঁপসা গরম গ্রীষ্মের শুরুতেই জানান দিচ্ছে প্রকৃতির রুক্ষতা। আবহাওয়া বিভাগ বলছে এ অবস্থা চলবে সপ্তাহজুড়ে। তাপমাত্রার পারদ চড়ছে হুহু করে।

 আজ মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে চুয়াডাঙ্গায়।

স্থানীয় আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগার সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার বিকেলে ৩টায় ৪০ দশমিক ৬ ডিগ্রি তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়। এ সময় বাতাসের আর্দ্রতা ছিল ২৭ শতাংশ, যা চলতি মৌসুমে চুয়াডাঙ্গার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা।

এর আগে গতকাল (১৫ এপ্রিল) বাংলা নতুন বছরের দ্বিতীয় দিনে রাজশাহীতে বছরের সর্বোচ্চ তাপ মাত্রা ৪১ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস — যা একাধারে গত আট বছরের মধ্যে দিনের বেলায় রেকর্ড করা সর্বোচ্চ তাপমাত্রা।

এদিকে তাপ প্রবাহের কারণে হিট স্ট্রোকের ঝুঁকি রয়েছে বারবার সতর্ক করছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞগণ।

এবিষয়ে চুয়াডাঙ্গা জেলার সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আওলিয়ার রহমান বলেন, তাপপ্রবাহের কারণে হিট স্ট্রোকের ঝুঁকি থাকে। তাই অতি প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের না হতে পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

চুয়াডাঙ্গা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপপরিচালক বিভাস চন্দ্র সাহা বলেন, তাপপ্রবাহের ক্ষতি থেকে ধান রক্ষার জন্য ধানের শীষে দানা শক্ত না হওয়া পর্যন্ত জমিতে অবশ্যই ৫-৭ সেন্টিমিটার পানি ধরে রাখুন।