ঢাকা ১০:২৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ ::
আমাদের নিউজপোর্টালে আপনাকে স্বাগতম...

বাজেটে ১১ বিষয় পেল বিশেষ গুরুত্ব

জাতীয় সংসদে উপস্থপিত ২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেটে ১১টি বিষয়ের ওপর বিশেষভাবে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে, যা দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ইশতেহারেও অগ্রাধিকার পেয়েছিল।

বৃহস্পতিবার (০৬ জুন) জাতীয় সংসদে বাজেট প্রস্তাবনায় এ কথা বলেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের এবারের নির্বাচনী ইশতেহারে মোট ১১টি বিষয়ে বিশেষ অগ্রাধিকার দিয়েছি। সবার ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে দ্রব্যমূল্য রাখার জন্য সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাওয়া, কর্মোপযোগী শিক্ষা ও যুবকদের কর্মসংস্থান নিশ্চিত করা, আধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তোলা, লাভজনক কৃষির লক্ষ্যে সমন্বিত কৃষি ব্যবস্থা বাজেটে গুরুত্ব পাবে।’

এছাড়া যান্ত্রিকীকরণ ও প্রক্রিয়াজাতকরণে বিনিয়োগ বৃদ্ধি, দৃশ্যমান অবকাঠামোর সুবিধা নিয়ে এবং বিনিয়োগ বৃদ্ধি করে শিল্পের প্রসার ঘটানো, ব্যাংকসহ আর্থিক খাতে দক্ষতা ও সক্ষমতা বৃদ্ধি করা, নিম্ন আয়ের মানুষদের স্বাস্থ্যসেবা সুলভ করা, সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থায় সবাইকে যুক্ত করতে বাজেট প্রণয়নের সময় বিশেষ বিবেচনায় নেয়া হয়েছে বলেও জানান অর্থমন্ত্রী।

বাজেটে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা থাকছে ৫ লাখ ৪১ হাজার কোটি টাকা। বাকি ২ লাখ ৫৬ হাজার কোটি টাকা ঋণ নেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা থাকবে। ২ লাখ ৬৫ হাজার কোটি টাকার বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) ইতোমধ্যে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

জনপ্রিয় সংবাদ

বাজেটে ১১ বিষয় পেল বিশেষ গুরুত্ব

আপডেট সময় : ০৫:১৪:৪৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ জুন ২০২৪

জাতীয় সংসদে উপস্থপিত ২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেটে ১১টি বিষয়ের ওপর বিশেষভাবে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে, যা দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ইশতেহারেও অগ্রাধিকার পেয়েছিল।

বৃহস্পতিবার (০৬ জুন) জাতীয় সংসদে বাজেট প্রস্তাবনায় এ কথা বলেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের এবারের নির্বাচনী ইশতেহারে মোট ১১টি বিষয়ে বিশেষ অগ্রাধিকার দিয়েছি। সবার ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে দ্রব্যমূল্য রাখার জন্য সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাওয়া, কর্মোপযোগী শিক্ষা ও যুবকদের কর্মসংস্থান নিশ্চিত করা, আধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তোলা, লাভজনক কৃষির লক্ষ্যে সমন্বিত কৃষি ব্যবস্থা বাজেটে গুরুত্ব পাবে।’

এছাড়া যান্ত্রিকীকরণ ও প্রক্রিয়াজাতকরণে বিনিয়োগ বৃদ্ধি, দৃশ্যমান অবকাঠামোর সুবিধা নিয়ে এবং বিনিয়োগ বৃদ্ধি করে শিল্পের প্রসার ঘটানো, ব্যাংকসহ আর্থিক খাতে দক্ষতা ও সক্ষমতা বৃদ্ধি করা, নিম্ন আয়ের মানুষদের স্বাস্থ্যসেবা সুলভ করা, সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থায় সবাইকে যুক্ত করতে বাজেট প্রণয়নের সময় বিশেষ বিবেচনায় নেয়া হয়েছে বলেও জানান অর্থমন্ত্রী।

বাজেটে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা থাকছে ৫ লাখ ৪১ হাজার কোটি টাকা। বাকি ২ লাখ ৫৬ হাজার কোটি টাকা ঋণ নেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা থাকবে। ২ লাখ ৬৫ হাজার কোটি টাকার বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) ইতোমধ্যে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।