ঢাকা ০৮:৩৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ ::
আমাদের নিউজপোর্টালে আপনাকে স্বাগতম...

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের ৭ম দফা ভোট গ্রহন আজ

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের শেষ দফা অর্থাৎ  ৭ম দফার ভোট গ্রহন চলছে আজ।

শনিবার (১ জুন)  সকাল ৮টা থেকে অনুষ্ঠিত হয়েছে ভারতের লোকসভা নির্বাচনের ভোট যা বিরতিহীন ভাবে বিকাল ৬টা পর্যন্ত চলবে। ভোটগ্রহন চলছে দেশটির  ৮টি রাজ্য ও কেন্দ্রীয় শাসিত অঞ্চলের ৫৭ টি লোকসভা আসনে। শেষ দফায় মোট ভোটারের সংখ্যা প্রায় ১০ কোটি ৬ লাখ। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫ কোটি ২৪ লাখ, নারী ভোটার রয়েছে ৪ কোটি ৮২ লাখ। আর তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার রয়েছেন ৩ হাজার ৫৭৪ জন। ভোটগ্রহণ হচ্ছে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)।

শেষ দফায় ভোট হচ্ছে উত্তরপ্রদেশের ১৩, পাঞ্জাবের ১৩, পশ্চিমবঙ্গের ৯, বিহারের ৮, ওড়িশার ৬, হিমাচল প্রদেশের ৪, ঝাড়খন্ডের ৩, আর চণ্ডিগড়ের ১টি আসনে।

শেষ পর্বের ভোটের মূল আকর্ষণ হয়ে উঠেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নিজেই। দেশটির উত্তর প্রদেশের বারানসি আসনে বিজেপির প্রার্থী তিনি। একটি চাঞ্চল্যকর বিষয় হলো দক্ষিণ ভারতের শেষ ভূখণ্ড কন্যাকুমারীতে সমুদ্রের মধ্যে অবস্থিত ‘বিবেকানন্দ রক’-এ গিয়ে তার ধ্যান করার সিদ্ধান্ত গ্রহন নিয়েছেন নরেন্দ মোদি। জনগনের সমর্থন পাওয়ার জন্য এটি তার ক্ষুদ্র প্রয়াস। গত বৃহস্পতিবার রাত থেকে সেখানে শুরু হয়েছে তার ধ্যানপর্ব ও আরাধনা। আজ শনিবার ভোট শেষে তিনি ধ্যান ভঙ্গ করবেন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির  ভাগ্যপরীক্ষা হবে এ দফার নির্বাচনেই। তৃতীয় বারের মতো উত্তরপ্রদেশের বারাণসী আসনে ভোটে লড়তে নেমেছেন তিনি। বিজেপির অন্য গুরুত্বপূর্ণ প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন কঙ্গনা রানাউত (মণ্ডী), অনুরাগ ঠাকুর (হামিরপুর), রবিশঙ্কর প্রসাদ (পটনা সাহিব)। কংগ্রেসের টিকিটে লড়ছেন পঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিংহ চন্নী (জালন্ধর) এবং দুই প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আনন্দ শর্মা (কাংড়া) এবং মণীশ তিওয়ারি (চণ্ডীগড়)।

উল্লেখ্য, গত ১৬ মার্চ ভারতের দ্বিকক্ষবিশিষ্ট সংসদের নিম্নসভা লোকসভা ভোটের সূচি প্রকাশ করে নির্বাচন কমিশন। সেই থেকে আড়াই মাসের বেশি সময় ধরে চলে নির্বাচন প্রক্রিয়া।

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

জনপ্রিয় সংবাদ

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের ৭ম দফা ভোট গ্রহন আজ

আপডেট সময় : ১০:০২:৩৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১ জুন ২০২৪

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের শেষ দফা অর্থাৎ  ৭ম দফার ভোট গ্রহন চলছে আজ।

শনিবার (১ জুন)  সকাল ৮টা থেকে অনুষ্ঠিত হয়েছে ভারতের লোকসভা নির্বাচনের ভোট যা বিরতিহীন ভাবে বিকাল ৬টা পর্যন্ত চলবে। ভোটগ্রহন চলছে দেশটির  ৮টি রাজ্য ও কেন্দ্রীয় শাসিত অঞ্চলের ৫৭ টি লোকসভা আসনে। শেষ দফায় মোট ভোটারের সংখ্যা প্রায় ১০ কোটি ৬ লাখ। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫ কোটি ২৪ লাখ, নারী ভোটার রয়েছে ৪ কোটি ৮২ লাখ। আর তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার রয়েছেন ৩ হাজার ৫৭৪ জন। ভোটগ্রহণ হচ্ছে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)।

শেষ দফায় ভোট হচ্ছে উত্তরপ্রদেশের ১৩, পাঞ্জাবের ১৩, পশ্চিমবঙ্গের ৯, বিহারের ৮, ওড়িশার ৬, হিমাচল প্রদেশের ৪, ঝাড়খন্ডের ৩, আর চণ্ডিগড়ের ১টি আসনে।

শেষ পর্বের ভোটের মূল আকর্ষণ হয়ে উঠেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নিজেই। দেশটির উত্তর প্রদেশের বারানসি আসনে বিজেপির প্রার্থী তিনি। একটি চাঞ্চল্যকর বিষয় হলো দক্ষিণ ভারতের শেষ ভূখণ্ড কন্যাকুমারীতে সমুদ্রের মধ্যে অবস্থিত ‘বিবেকানন্দ রক’-এ গিয়ে তার ধ্যান করার সিদ্ধান্ত গ্রহন নিয়েছেন নরেন্দ মোদি। জনগনের সমর্থন পাওয়ার জন্য এটি তার ক্ষুদ্র প্রয়াস। গত বৃহস্পতিবার রাত থেকে সেখানে শুরু হয়েছে তার ধ্যানপর্ব ও আরাধনা। আজ শনিবার ভোট শেষে তিনি ধ্যান ভঙ্গ করবেন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির  ভাগ্যপরীক্ষা হবে এ দফার নির্বাচনেই। তৃতীয় বারের মতো উত্তরপ্রদেশের বারাণসী আসনে ভোটে লড়তে নেমেছেন তিনি। বিজেপির অন্য গুরুত্বপূর্ণ প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন কঙ্গনা রানাউত (মণ্ডী), অনুরাগ ঠাকুর (হামিরপুর), রবিশঙ্কর প্রসাদ (পটনা সাহিব)। কংগ্রেসের টিকিটে লড়ছেন পঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিংহ চন্নী (জালন্ধর) এবং দুই প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আনন্দ শর্মা (কাংড়া) এবং মণীশ তিওয়ারি (চণ্ডীগড়)।

উল্লেখ্য, গত ১৬ মার্চ ভারতের দ্বিকক্ষবিশিষ্ট সংসদের নিম্নসভা লোকসভা ভোটের সূচি প্রকাশ করে নির্বাচন কমিশন। সেই থেকে আড়াই মাসের বেশি সময় ধরে চলে নির্বাচন প্রক্রিয়া।