ঢাকা ১০:০২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ ::
আমাদের নিউজপোর্টালে আপনাকে স্বাগতম...
অর্থ আত্মসাৎ হেড: সিটি ব্যাংকের সহকারী ভাইস চেয়ারম্যানের কারাদণ্ড

সিটি ব্যাংক কর্মকর্তার জালিয়াতি মামলায়  ২৬ বছরের কারাদণ্ড

সিটি ব্যাংকের সহকারী ভাইস প্রেসিডেন্ট ও কার্ড ডিভিশনের প্রধান মুসাব্বির রহিম ব্যাংকের গ্রাহকদের কাছ জালিয়াতি করে দুই কোটি ৫০ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার মামলায় তাদেরকে ২৬ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (২৯ এপ্রিল) ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪ এর বিচারক সৈয়দ আরাফাত হোসেনের আদালত এ রায় ঘোষণা করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায় যে, ‘মুসাব্বির রহিম ২০১৫ সালের ২৫ নভেম্বর থেকে ২০১৬ সালের ২৪ এপ্রিল পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে জালিয়াতির মাধ্যমে সিটি ব্যাংক ও এর গ্রাহকদের কাছ থেকে দুই কোটি ৫০ লাখ টাকার অধিক হাতিয়ে নেন। ২০১৯ সালের ২৫ আগস্ট মুসাব্বির রহিমের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত। মামলার বিচার চলাকালে আদালত ২১ জন সাক্ষীর মধ্যে ১৭ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন।’

আসামিকে দুই ধারায় ৭ বছর করে ১৪ বছরের কারাদণ্ডের পাশাপাশি ২০ হাজার টাকা করে ৪০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছে আদালত, আরেক ধারায় ১০ বছরের কারাদণ্ডের পাশাপাশি তাকে এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে তাকে আরও এক বছর কারাভোগ করতে হবে। অপর এক ধারায় দুই বছরের কারাদণ্ড, ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে তাকে আর ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

জনপ্রিয় সংবাদ

অর্থ আত্মসাৎ হেড: সিটি ব্যাংকের সহকারী ভাইস চেয়ারম্যানের কারাদণ্ড

সিটি ব্যাংক কর্মকর্তার জালিয়াতি মামলায়  ২৬ বছরের কারাদণ্ড

আপডেট সময় : ০৩:০১:৪৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৯ এপ্রিল ২০২৪

সিটি ব্যাংকের সহকারী ভাইস প্রেসিডেন্ট ও কার্ড ডিভিশনের প্রধান মুসাব্বির রহিম ব্যাংকের গ্রাহকদের কাছ জালিয়াতি করে দুই কোটি ৫০ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার মামলায় তাদেরকে ২৬ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (২৯ এপ্রিল) ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪ এর বিচারক সৈয়দ আরাফাত হোসেনের আদালত এ রায় ঘোষণা করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায় যে, ‘মুসাব্বির রহিম ২০১৫ সালের ২৫ নভেম্বর থেকে ২০১৬ সালের ২৪ এপ্রিল পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে জালিয়াতির মাধ্যমে সিটি ব্যাংক ও এর গ্রাহকদের কাছ থেকে দুই কোটি ৫০ লাখ টাকার অধিক হাতিয়ে নেন। ২০১৯ সালের ২৫ আগস্ট মুসাব্বির রহিমের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত। মামলার বিচার চলাকালে আদালত ২১ জন সাক্ষীর মধ্যে ১৭ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন।’

আসামিকে দুই ধারায় ৭ বছর করে ১৪ বছরের কারাদণ্ডের পাশাপাশি ২০ হাজার টাকা করে ৪০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছে আদালত, আরেক ধারায় ১০ বছরের কারাদণ্ডের পাশাপাশি তাকে এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে তাকে আরও এক বছর কারাভোগ করতে হবে। অপর এক ধারায় দুই বছরের কারাদণ্ড, ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে তাকে আর ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।