ঢাকা ০৯:০১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ ::
আমাদের নিউজপোর্টালে আপনাকে স্বাগতম...

হিটস্ট্রোকের ঝুঁকি এড়াতে যে তথ্য প্রকাশ করলো স্বাস্থ্য অধিদফতর

বিদ্যমান তীব্র তাপ প্রবাহে হিটস্ট্রোকের ঝুঁকি কমাতে চার দফা নির্দেশনা প্রকাশ করেছেন স্বাস্থ্য অধিদফতর। মঙ্গলবার এক সংবাদ মাধ্যমে এ তথ্য প্রকাশ করেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।
স্বাস্থ্য অধিদফতরের বলা তথ্য মতে, দেশে তীব্র তাপপ্রবাহ বিদ্যমান আছে। আর এই তাপমাত্রা গতবছরের তুলনায় এ বছরে তাপমাত্রা অনেকাংশে বেশি রয়েছে। তাই আমাদের পরিস্থিতির মোকাবিলা করার জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রীর পাঠানো নিয়ম নীতিকে মেনে চলা প্রয়োজন। তাই সুস্থ থাকতে সতর্কতার কোনো বিকল্প নেই।

নির্দেশনাগুলো হলো-

১. তীব্র গরম থেকে দূরে থাকুন, মাঝে মাঝে ছায়ায় বিশ্রাম নিন।

২. প্রচুর পরিমাণে নিরাপদ পানি পান করুন। হেপাটাইটিস এ, ই, ডায়রিয়াসহ প্রাণঘাতি পানিবাহিত রোগ থেকে বাঁচতে রাস্তায় তৈরি পানীয় ও খাবার এড়িয়ে চলুন। প্রয়োজনে একাধিকবার গোসল করুন।

৩. গরম আবহাওয়ায় ঢিলেঢালা পাতলা ও হালকা রঙের পোশাক পরুন, সম্ভব হলে গাঢ় রঙিন পোশাক এড়িয়ে চলুন।

৪. গরম আবহাওয়ায় যদি ঘাম বন্ধ হয়ে যায়, বমি বমি ভাব দেখা দেয়, তীব্র মাথাব্যথা হয়, শরীরের তাপমাত্রা বেড়ে যায়, প্রস্রাব কমে যায়, প্রস্রাবে জ্বালাপোড়া হয়, খিঁচুনি ও অজ্ঞান হওয়ার মতো কোনো লক্ষণ দেখা দেয়, তাহলে অবিলম্বে হাসপাতালে যান এবং চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছেন, এদিকে দেশে তীব্র তাপপ্রবাহ পরিস্থিতি আগামী ৭২ ঘণ্টা বিদ্যমান থাকবে।

উল্লেখ্য, গতকাল খুলনা, যশোর ও চুয়াডাঙ্গায় এই তিন জেলায় দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৪০ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, আজ ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৮ দশমিক চার ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগামীকালও তাপমাত্রা বাড়তে পারে। বৃষ্টির আভাস না থাকায় তাপপ্রবাহ কমার কোনো সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে না।

 

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

জনপ্রিয় সংবাদ

হিটস্ট্রোকের ঝুঁকি এড়াতে যে তথ্য প্রকাশ করলো স্বাস্থ্য অধিদফতর

আপডেট সময় : ০৫:৪৩:৪১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪

বিদ্যমান তীব্র তাপ প্রবাহে হিটস্ট্রোকের ঝুঁকি কমাতে চার দফা নির্দেশনা প্রকাশ করেছেন স্বাস্থ্য অধিদফতর। মঙ্গলবার এক সংবাদ মাধ্যমে এ তথ্য প্রকাশ করেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।
স্বাস্থ্য অধিদফতরের বলা তথ্য মতে, দেশে তীব্র তাপপ্রবাহ বিদ্যমান আছে। আর এই তাপমাত্রা গতবছরের তুলনায় এ বছরে তাপমাত্রা অনেকাংশে বেশি রয়েছে। তাই আমাদের পরিস্থিতির মোকাবিলা করার জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রীর পাঠানো নিয়ম নীতিকে মেনে চলা প্রয়োজন। তাই সুস্থ থাকতে সতর্কতার কোনো বিকল্প নেই।

নির্দেশনাগুলো হলো-

১. তীব্র গরম থেকে দূরে থাকুন, মাঝে মাঝে ছায়ায় বিশ্রাম নিন।

২. প্রচুর পরিমাণে নিরাপদ পানি পান করুন। হেপাটাইটিস এ, ই, ডায়রিয়াসহ প্রাণঘাতি পানিবাহিত রোগ থেকে বাঁচতে রাস্তায় তৈরি পানীয় ও খাবার এড়িয়ে চলুন। প্রয়োজনে একাধিকবার গোসল করুন।

৩. গরম আবহাওয়ায় ঢিলেঢালা পাতলা ও হালকা রঙের পোশাক পরুন, সম্ভব হলে গাঢ় রঙিন পোশাক এড়িয়ে চলুন।

৪. গরম আবহাওয়ায় যদি ঘাম বন্ধ হয়ে যায়, বমি বমি ভাব দেখা দেয়, তীব্র মাথাব্যথা হয়, শরীরের তাপমাত্রা বেড়ে যায়, প্রস্রাব কমে যায়, প্রস্রাবে জ্বালাপোড়া হয়, খিঁচুনি ও অজ্ঞান হওয়ার মতো কোনো লক্ষণ দেখা দেয়, তাহলে অবিলম্বে হাসপাতালে যান এবং চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছেন, এদিকে দেশে তীব্র তাপপ্রবাহ পরিস্থিতি আগামী ৭২ ঘণ্টা বিদ্যমান থাকবে।

উল্লেখ্য, গতকাল খুলনা, যশোর ও চুয়াডাঙ্গায় এই তিন জেলায় দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৪০ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, আজ ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৮ দশমিক চার ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগামীকালও তাপমাত্রা বাড়তে পারে। বৃষ্টির আভাস না থাকায় তাপপ্রবাহ কমার কোনো সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে না।